২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ভর্তি পরীক্ষা নতুন নিয়মে

চলতি বছর (২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে নতুন নিয়মে ভর্তি পরীক্ষা হবে। প্রশ্নপত্রে বহু নির্বাচনী প্রশ্নের (এমসিকিউ) পাশাপাশি থাকবে লিখিত পরীক্ষা। আগের বছরগুলোতে শুধু এমসিকিউ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হতো।

গত ৩ জুলাই ডিনস কমিটির সভায় নতুন নিয়মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে। সভায় আসন্ন শিক্ষাবর্ষ (২০১৯-২০) থেকে ৬০ নম্বরের এমসিকিউ ও ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তির সিদ্ধান্ত হয়েছে। এমসিকিউ ৪০ মিনিট এবং লিখিত পরীক্ষার জন্য ৫০ মিনিট সময় থাকবে। সংক্ষিপ্ত আকারের লিখিত প্রশ্ন উত্তরপত্রের মধ্যেই থাকবে এবং সেখানেই উত্তর দিতে হবে। দুই অংশ মিলিয়ে ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষার ফল এবং এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমানের ফলকে ১০০ নম্বর হিসাব করে মোট ২০০ নম্বরের ভিত্তিতে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হবে। শিগগিরই ভর্তি কমিটির সভায় এ বিষয়ে অনুমোদন নিয়ে তা ঘোষণা করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮৪টি বিভাগ রয়েছে। এগুলোতে প্রথম বর্ষে মোট আসন ৭,৬৩০ টি। পাঁচটি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা হয়।

আবেদন : ৫ আগস্ট থেকে ২৭ আগস্ট পর্যন্ত অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষার আবেদনপত্র গ্রহণ করা হবে। তবে টাকা জমা দেওয়ার শেষ সময় ২৮ আগস্ট। এবার মোট আবেদন ফি ১০০ টাকা বাড়িয়ে ৪৫০ টাকা করা হয়েছে।

ভর্তি পরীক্ষা : ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা হবে ১৩ সেপ্টেম্বর। এ ছাড়া বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের পরীক্ষা ২০ সেপ্টেম্বর, কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিটের পরীক্ষা ২১ সেপ্টেম্বর, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা হবে ২৭ সেপ্টেম্বর। আর চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের সাধারণ জ্ঞান অংশের পরীক্ষা ১৪ সেপ্টেম্বর ও অঙ্কন অংশের পরীক্ষা হবে ২৮ সেপ্টেম্বর।

অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থা :
দেশের কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়সহ আটটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এবার একসঙ্গে ভর্তি পরীক্ষা নেবে। এছাড়া, সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত (পাবলিক) বাদবাকি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আগের মতোই আলাদাভাবে ভর্তি পরীক্ষা হবে।

দেশে ৪৯টি স্বায়ত্তশাসিত ও সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের৪৪ টিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হচ্ছে। এর মধ্যে কেবল বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় এবং সমধারার পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ ভিত্তিতে পরীক্ষা নেবে।
এবার গুচ্ছভিত্তিক বা একযোগে ভর্তির কাজটির নেতৃত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়। অর্থাৎ, কেন্দ্রীয়ভাবে এক পরীক্ষার মাধ্যমেই ৮ বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো একটিতে (মেধাক্রমের ভিত্তিতে) ভর্তির সুযোগ পাবে শিক্ষার্থীরা। ৮ বিশ্ববিদ্যালয়েই ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্র থাকবে। শিক্ষার্থীরা নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী কেন্দ্র বাছাই করতে পারবে।

আরো দেখুন

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.