২০১৮ সালের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষায় পাশের হার ৮৫.৮৩, প্রাথমিকে ৯৭.৬০

২০১৮ সালের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এ বছর (২০১৮) জেএসসি ও জেডিসি উভয় পরীক্ষায় মোট পাস করেছে ৮৫.৮৩ শতাংশ শিক্ষার্থী, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬৮,০৯৫ জন। পৃথকভাবে হিসেব করলে জেএসসিতে পাসের হার ৮৫.২৮ শতাংশ, আর জেডিসিতে ৮৯.০৪ শতাংশ।

আজ (২৪ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার) বেলা ১২টার দিকে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার (২০১৮) ফলাফলের বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরার পরই অনলাইনে ও পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে ফল জানা যাবে।

উল্লেখ্য, গত বছর (২০১৭) পাশের হার ছিল ৮৩.৬৫ শতাংশ আর জিপিএ ৫ পাওয়া শিক্ষার্থী ছিল ৯১,৬২৮ জন। সে হিসেবে এ বছর (২০১৮) পাশের হার বেড়েছে, কিন্তু জিপিএ ৫-এর সংখ্যা অনেকাংশেই কমেছে।

গত বছর ফলাফল নির্ণয়ের ক্ষেত্রে চতুর্থ বিষয়ের মূল্যায়ন অন্তর্ভুক্ত ছিল, এ বছর এমনটি হয়নি। জিপিএ ৫ কমার পেছনে এটাও কারণ হতে পারে বলে মত দিয়েছেন অনেকেই।

এ বছর (২০১৮) সারা দেশের ২৬ লাখ ৭০ হাজার ৩৩৩ জন শিক্ষার্থী জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় ১ থেকে ১৫ নভেম্বর ২০১৮ তারিখ পর্যন্ত।

এসএমএস করে ফলাফল জানার পাশাপাশি শিক্ষা বোর্ডের ফলাফল সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইট (www.educationboardresults.gov.bd) থেকে বিস্তারিত ফল পাওয়া যাবে।

এদিকে, একই দিন পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলও প্রকাশিত হয়েছে। ২০১৮ সালে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় পাসের হার ৯৭.৫৯ শতাংশ, আর ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনীতে ৯৭.৬৯ শতাংশ। এই দুই পরীক্ষা (প্রাথমিক/ইবতেদায়ি) মিলিয়ে পাসের হার ৯৭.৬০ শতাংশ।

জেএসসি-জেডিসি ও প্রাথমিক-ইবতেদায়ি সমাপনীর ফল যেভাবে জানা যাবে

আরো দেখুন

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.