ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় : ভর্তি আবেদনের যোগ্যতা শিথিল

২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে অনার্সে ভর্তি আবেদনের যোগ্যতা শিথিল করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কর্তৃপক্ষ। এসএসসি ও এইচএসসি-তে ৪র্থ বিষয়ে পাওয়া জিপিএ হিসাব করা হচ্ছে এবার। এর আগে ৪র্থ বিষয় ছাড়া হিসাব করা হতো।
ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হবে ২৪ আগস্ট থেকে, শেষ হবে ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখ পর্যন্ত।
খ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৯ অক্টোবর ২০১৫ (শুক্রবার), চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সাধারণ জ্ঞান ১০ অক্টোবর ২০১৫ (শনিবার), গ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১৬ অক্টোবর ২০১৫ (শুক্রবার), চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অংকন ১৭ অক্টোবর ২০১৫ (শনিবার), ক-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৩০ অক্টোবর ২০১৫ (শুক্রবার) এবং ঘ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৬ নভেম্বর ২০১৫ (শুক্রবার) অনুষ্ঠিত হবে।
আবেদনের যোগ্যতা :
ক-ইউনিটের অধীনে ভর্তিচ্ছুদের বিজ্ঞান ও কৃষি বিজ্ঞান শাখায় উচচ মাধ্যমিক এবং মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের বিজ্ঞান শাখায় আলিম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক অথবা সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জিপিএ.-দ্বয়ের যোগফল অন্তত ৮.০ হতে হবে।
খ-ইউনিটের অধীনে ভর্তিচ্ছুদের মানবিক শাখায় মাধ্যমিক উচচ মাধ্যমিক এবং মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের মানবিক শাখায় আলিম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক অথবা সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জি.পি.এ.-দ্বয়ের যোগফল হতে হবে অন্তত ৭.০।
গ-ইউনিটের অধীনে ভর্তিচ্ছুদের ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় উচ্চ মাধ্যমিক, ডিপ্লোমা ইন বিজনেস স্টাডিজ, বিজনেস ম্যানেজমেন্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক অথবা সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জি.পি.এ.-দ্বয়ের যোগফল হতে হবে অন্তত ৭.৫।
ঘ-ইউনিটের অধীনে ভর্তিচ্ছুদের ১। (ক) মানবিক শাখায় মাধ্যমিক উচচ মাধ্যমিক এবং মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের মানবিক শাখায় আলিম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক অথবা সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জি.পি.এ.-দ্বয়ের যোগফল অন্তত ৭.০ হতে হবে।
(খ) বিজ্ঞান, কৃষি বিজ্ঞান, গার্হস্থ্য অর্থনীতি ও মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের বিজ্ঞান শাখা থেকে আগত প্রার্থীদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জি.পি.এ.-দ্বয়ের যোগফল অন্তত ৮.০ হতে হবে ।
(গ) ব্যবসায় শিক্ষা, ডিপ্লোমা ইন বিজনেস স্টাডিজ ও বিজনেস ম্যানেজমেন্ট শাখা থেকে আগত প্রার্থীদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত জি.পি.এ.-দ্বয়ের যোগফল হতে হবে অন্তত ৭.৫।
এ ক্ষেত্রে উচ্চ মাধ্যমিক অথবা সমমানের পরীক্ষায় কোন বিষয়েই লেটার গ্রেড-বি (গ্রেড পয়েন্ট -৩) এর নীচে হলে আবেদন করা যাবে না।
চ-ইউনিটের অধীনে ভর্তিচ্ছুদের মাধ্যমিক ও উচচ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ যেকোন একটি নূন্যতম জিপিএ ৩.০ এবং উভয় পরীক্ষার জিপিএদ্বয়ের যোগফল নূন্যতম ৬.৫ থাকতে হবে।
ও লেভেল পরীক্ষায় অন্তত ৫টি বিষয়ে এবং এ লেভেল পরীক্ষায় অন্তত ২টি বিষয়ের মধ্যে অর্থাৎ মোট ৭টি বিষয়ের মধ্যে ৪টি বিষয়ে কমপক্ষে বি-গ্রেড ও ৩টি বিষয়ে কমপক্ষে সি-গ্রেড প্রাপ্ত হতে হবে।
উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় সর্বনিম্ন গ্রেড প্রাপ্তির শর্তাদি এবং বিভাগীয় শর্তাদি ভর্তি নির্দেশিকায় উল্লেখ থাকবে।
ব্যাংক সার্ভিস চার্জ ও অনলাইন সার্ভিস ফিসহ ভর্তি পরীক্ষার ফি ৩৫০/-(তিনশত পঞ্চাশ) টাকা নির্ধারিত হয়েছে। বিস্তারিত ওয়েব সাইটের মাধ্যমে ও বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে পরবর্তীকালে জানিয়ে দেওয়া হবে।

  • শিক্ষাবিষয়ক দরকারি তথ্য তাৎক্ষণিক পেতে আমাদের ফেইসবুক পেজে লাইক দিয়ে রাখুন : www.facebook.com/EducationBarta
  • মন্তব্য করুন

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.