বিশ্বের শীর্ষ তালিকায় কি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নেই?

কিছু দিন পরপর পত্রিকায় খবর আসে, ওয়ার্ল্ড র‌্যাঙ্কিংয়ে সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম নেই। আবার কখনো কখনো দেখানো হয় কিছু private university নাকি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ে এগিয়ে। বিষয়টা আসলে কী, গত কয়েকদিন ধরে তা জানার চেষ্টা করেছি। এজন্য আমি গুগল থেকে “WORLD UNIVERSITY RANKING” নামে search দিয়ে তৃতীয় যে link টা আসে, তার সাহায্য নিয়েছি।
এটি হল- http://www.webometrics.info/en/Asia/Bangladesh। বিশ্বে সেরার তালিকায় বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর RANKING ও নাম যথাক্রমে-
2507 Brac University
2667 Bangladesh University of Engineering and Technology
2959 Daffodil International University
3595 University of Dhaka
4070 Independent University Bangladesh
4306 Bangladesh Agricultural University
4425 Shahjalal University of Science & Technology
4493 Rajshahi University
4749 Khulna University of Engineering & Technology
5021 Islamic University of Technology
5041 East West University Bangladesh
5487 Jahangirnagar University
6121 North South University
6935 National University
7051 American International University Bangladesh
এবার আসল কথায় আসা যাক। বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর খবরা খবর যারা রাখেন, এ তালিকা দেখে তাদের চোখ কপালে উঠবে। কারণ, মানলাম না হয় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ে এগিয়ে, কিন্তু কোন যুক্তিতে মানবো যে KUET, BAU, DUET, CU, KU, RUET-এর চেয়ে NATIONAL UNIVERSITY এগিয়ে। অথবা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, BSMMU এর চেয়ে এগিয়ে।
তুলনাটা আমি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে রাখলাম। বেসরকারির সাথে সরকারিরটা আপনারা করবেন। এই তালিকার পেছনের গল্পে আসি। ওয়েবসাইটটিতে স্পষ্ট করেই বলা আছে, ranking টি তৈরিতে ৫০% মার্ক ছিল impact of link visibility তে। বাকি ৫০% presence, openness ও excellence-এ।
তাও আবার বিভিন্ন মিডিয়া নির্ভর, প্রত্যাক্ষ বাছ-বিচারে নয়। কোথাও শিক্ষার মানের কথা বলা নেই।
এবার আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে আসি। সদ্য কলেজ পাশ করা যে কোন ছাত্রকে যদি বলা হয় যে সে কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে চায় তাহলে সে নিশ্চিত ঢাবির কথা বলবে।
তবে বিজ্ঞান বিভাগের ক্ষেত্রে BUET অথবা DMC হতে পারে। তার প্রতিফলন আমরা প্রতি বছর ভর্তি পরীক্ষাতে দেখতে পাই। মানবিক বিভাগ এবং ব্যবসায় শিক্ষার ক্ষেত্রে সবচেয়ে মেধাবি ছাত্ররা নিশ্চিন্তে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে বেছে নেয়।
বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীরা বেছে নেয় BUET, DMC অথবা DU কে। এরপরে অন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে শিক্ষার্থীরা বিবেচনা করে। এখন অবশ্য ইংরেজি মাধ্যমের অনেক শিক্ষার্থী প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে বেছে নিচ্ছে কিন্তু তাদের অনেকেই আবার সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, বিশেষ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বুয়েট অথবা বিভিন্ন মেডিকেল কলেজগুলোকে প্রাধান্য দিচ্ছে।
আর এ কথা সবাঈ জানে যে সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শিক্ষকরা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণ। তাহলে teacher quality তেও তারা কীভাবে সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপরে থাকে? আর সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে তুলনা করলে বিজ্ঞান ব্যাতীত কেউই বলবে না যে তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকে এগিয়ে।
ওয়েবসাইটটির এই প্রতিবেদনটি তৈরিতে লেখাপড়ার মান ও গবেষণা বাদ দেয়া হয়েছে। এ দুইটি দিক যোগ করলেও আশা করি ফলাফলের কোন পরিবর্তন হবে না।
সর্বশেষে একটা কথা বলা যাক – যত বড়ই ইউনিভার্সিটি হোক না কেন, তারা ভাল কিছু গ্রাজুয়েট এবং শিক্ষক উপহার দিয়েছে। আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বের একমাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যা একটা জাতি, একটা স্বাধীন দেশ উপহার দিয়েছে। যা Ranking দিয়ে পরিমাপ করা সম্ভব নয়।
– ফেরদৌস আলম

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

gtag('config', 'UA-69122190-1');